ঢাকা ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




৫০০ বছরের পুরোনো মোঘল আমলের চান্দামারী মসজিদ সংরক্ষণের দাবী

তুহিন, স্টাফ রিপোর্টার কুড়িগ্রাম
  • প্রকাশিত : ০১:৪৮:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০ ১৩০১ বার পঠিত
কালের ধারা ২৪, অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

চান্দামারী মসজিদটি কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলায় অবস্থিত।৫০০ শত বছর পুরনো মোঘল আমলের নিদর্শন এই চান্দামারী মসজিদ এখনো স্বমহিমায় দাঁড়িয়ে রয়েছে।সংস্কারে অভাবে মসজিদটির বেহাল দশা।

বিজ্ঞাপন

মসজিদটি রাজারহাট উপজেলা পরিষদ  থেকে ৩ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে চান্দামারী মন্ডলপাড়া গ্রামে মাত্র ৫১শতক জমির উপর নির্মিত মসজিদটি অপূর্ব কারুকার্যে খন্ডিত। এলাকাবাসীরা এই প্রাচীন স্থাপনা রক্ষনাবেক্ষণের জন্য সরকারের প্রত্বতত্ত¡ বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

গ্রামবাসীরা জানান,পুরনো মোঘল আমলে এই মসজিদটি নির্মিত হয়েছে। ভারতের বাবরি মসজিদ  ও বাগের হাটের ৬০ গম্বুজ মসজিদের আদলে তৈরি এই সুনিপণ চান্দামারী মসজিদটিতে তিনটি গম্বুজ  রয়েছে।মসজিদটিতে এলাকার মুসল্লিরা নিয়মিত নামাজ আদায় করেন।

নান্দনিক এই মসজিদটি দেখতে প্রতিদিন দুর-দুরান্ত থেকে অনেক দর্শনার্থী  আসেন।মসজিদের পুরো অবকাঠামোটির দৈর্ঘ্য ৪৫ ফুট, প্রস্থ ২২ফুট এবং উচ্চতা ৬০ফুট। চারদিকে বাউন্ডারি ওয়াল দ্বারা ঘেরা। মসজিদটি অতি প্রাচীন হওয়ায় এখন জরাজির্ণ অবস্থা। একটি গম্বুজ একাংশ ভেঙ্গে গেলে স্থানীয়রা তা সংষ্কার করে। এছাড়া দু’একটি অংশের গাঁথুনিতেও লোনা ধরেছে। বর্ষাকালে দেয়াল বেয়ে পানি জমে মসজিদের ভিতর। গ্রামের লোকজন গরীব হওয়ায় তারা মসজিদটি সংষ্কারে কোন উদ্যোগ নিতে পারছে না।

এই প্রাচীন স্থাপনাটি আর্থিক সমস্যার কারণে সংষ্কার করা সম্ভব হচ্ছে না এমনটাই জানান, মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি জাকির হোসেন চৌধুরী।

এলাকার সবচেয়ে পুরোনো মসজিদ চান্দামারী মসজিদ।চান্দামারী ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ(ভারপ্রাপ্ত) মাওলানা আক্তার আহসানসহ এলাকাবাসীরা ঐতিহ্যবাহী মসজিদটির স্মৃতি সংরক্ষণ করতে প্রত্বতত্ত্ব বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।




ফেসবুকে আমরা







x

৫০০ বছরের পুরোনো মোঘল আমলের চান্দামারী মসজিদ সংরক্ষণের দাবী

প্রকাশিত : ০১:৪৮:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০
print news

চান্দামারী মসজিদটি কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলায় অবস্থিত।৫০০ শত বছর পুরনো মোঘল আমলের নিদর্শন এই চান্দামারী মসজিদ এখনো স্বমহিমায় দাঁড়িয়ে রয়েছে।সংস্কারে অভাবে মসজিদটির বেহাল দশা।

বিজ্ঞাপন

মসজিদটি রাজারহাট উপজেলা পরিষদ  থেকে ৩ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে চান্দামারী মন্ডলপাড়া গ্রামে মাত্র ৫১শতক জমির উপর নির্মিত মসজিদটি অপূর্ব কারুকার্যে খন্ডিত। এলাকাবাসীরা এই প্রাচীন স্থাপনা রক্ষনাবেক্ষণের জন্য সরকারের প্রত্বতত্ত¡ বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

গ্রামবাসীরা জানান,পুরনো মোঘল আমলে এই মসজিদটি নির্মিত হয়েছে। ভারতের বাবরি মসজিদ  ও বাগের হাটের ৬০ গম্বুজ মসজিদের আদলে তৈরি এই সুনিপণ চান্দামারী মসজিদটিতে তিনটি গম্বুজ  রয়েছে।মসজিদটিতে এলাকার মুসল্লিরা নিয়মিত নামাজ আদায় করেন।

নান্দনিক এই মসজিদটি দেখতে প্রতিদিন দুর-দুরান্ত থেকে অনেক দর্শনার্থী  আসেন।মসজিদের পুরো অবকাঠামোটির দৈর্ঘ্য ৪৫ ফুট, প্রস্থ ২২ফুট এবং উচ্চতা ৬০ফুট। চারদিকে বাউন্ডারি ওয়াল দ্বারা ঘেরা। মসজিদটি অতি প্রাচীন হওয়ায় এখন জরাজির্ণ অবস্থা। একটি গম্বুজ একাংশ ভেঙ্গে গেলে স্থানীয়রা তা সংষ্কার করে। এছাড়া দু’একটি অংশের গাঁথুনিতেও লোনা ধরেছে। বর্ষাকালে দেয়াল বেয়ে পানি জমে মসজিদের ভিতর। গ্রামের লোকজন গরীব হওয়ায় তারা মসজিদটি সংষ্কারে কোন উদ্যোগ নিতে পারছে না।

এই প্রাচীন স্থাপনাটি আর্থিক সমস্যার কারণে সংষ্কার করা সম্ভব হচ্ছে না এমনটাই জানান, মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি জাকির হোসেন চৌধুরী।

এলাকার সবচেয়ে পুরোনো মসজিদ চান্দামারী মসজিদ।চান্দামারী ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ(ভারপ্রাপ্ত) মাওলানা আক্তার আহসানসহ এলাকাবাসীরা ঐতিহ্যবাহী মসজিদটির স্মৃতি সংরক্ষণ করতে প্রত্বতত্ত্ব বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।