ঢাকা ০১:৩০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




সারাদেশে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ১০:৩০:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ এপ্রিল ২০২২ ১৪৯ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

সারাদেশে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার

মহামারি করোনা প্রতিরোধে টিকা কর্মসূচি শুরু থেকে এখন পর্যন্ত বুস্টার ডোজ পেয়েছেন এক কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার ৭০৬ জন। এছাড়া দুই ডোজ টিকার আওতায় এসেছে ১১ কোটি ৬০ লাখ ৫৬ হাজার ৫৩৫ জন মানুষ। আর প্রথম ডোজের আওতায় এসেছেন ১২ কোটি ৮৪ লাখ ৯৯ হাজার ৩৯৯ জন।

দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনার টিকাদান বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, গত একদিনে সারা দেশে প্রথম ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে ১৭ হাজার ৪৭৪ জনকে। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৮২ হাজার ২৫৯ জন। এছাড়াও এ সময়ে বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে ১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৯৮ জনকে। এগুলো দেয়া হয়েছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম, ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা।

বিজ্ঞাপন

২০২১ সালের ১ নভেম্বর থেকে দেশে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখ ১৫ হাজার ৩৫৪ জনকে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হয়েছে এক কোটি ৫৮ লাখ ৬১ হাজার ৪০৫ জনকে।

সারাদেশে এ পর্যন্ত ২ লাখ ১৫ হাজার ৯৫৭ জন ভাসমান জনগোষ্ঠী টিকার আওতায় এসেছেন। তাদের জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে।

মহামারি করোনা টিকার নিবন্ধন শুরু হয় গত বছরের ২৭ জানুয়ারি। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। ১৮ বছর বয়সী যেকোনো মানুষ এখন টিকা নিতে পারছেন।




ফেসবুকে আমরা




x

সারাদেশে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার

প্রকাশিত : ১০:৩০:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ এপ্রিল ২০২২
print news

সারাদেশে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার

মহামারি করোনা প্রতিরোধে টিকা কর্মসূচি শুরু থেকে এখন পর্যন্ত বুস্টার ডোজ পেয়েছেন এক কোটি ২১ লাখ ৪২ হাজার ৭০৬ জন। এছাড়া দুই ডোজ টিকার আওতায় এসেছে ১১ কোটি ৬০ লাখ ৫৬ হাজার ৫৩৫ জন মানুষ। আর প্রথম ডোজের আওতায় এসেছেন ১২ কোটি ৮৪ লাখ ৯৯ হাজার ৩৯৯ জন।

দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনার টিকাদান বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, গত একদিনে সারা দেশে প্রথম ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে ১৭ হাজার ৪৭৪ জনকে। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৮২ হাজার ২৫৯ জন। এছাড়াও এ সময়ে বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে ১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৯৮ জনকে। এগুলো দেয়া হয়েছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম, ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা।

বিজ্ঞাপন

২০২১ সালের ১ নভেম্বর থেকে দেশে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখ ১৫ হাজার ৩৫৪ জনকে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হয়েছে এক কোটি ৫৮ লাখ ৬১ হাজার ৪০৫ জনকে।

সারাদেশে এ পর্যন্ত ২ লাখ ১৫ হাজার ৯৫৭ জন ভাসমান জনগোষ্ঠী টিকার আওতায় এসেছেন। তাদের জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে।

মহামারি করোনা টিকার নিবন্ধন শুরু হয় গত বছরের ২৭ জানুয়ারি। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। ১৮ বছর বয়সী যেকোনো মানুষ এখন টিকা নিতে পারছেন।