ঢাকা ১২:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




শেরপুরে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ০১:৪০:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জুন ২০২১ ৫১৮ বার পঠিত
কালের ধারা ২৪, অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

ময়মনসিংহ বিভাগের শেরপুর জেলায় ১ম করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৫ এপ্রিল।এতদিন করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এ বছরে জুন মাস শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিনিয়ত লাফিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী।প্রতিদিন তৈরি হচ্ছে শনাক্তের নতুন রেকর্ড।অন্যান্য উপজেলায় কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও শেরপুর সদরের অবস্থা নাজুক।যার কারনে সদর উপজেলায় সর্বত্র আতংক বিরাজ করছে।সবকিছু স্বাভাবিক থাকলেও গত ১১ জুন থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত শেরপুর পৌর এলাকার জন্য ৯ দফা কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।

বিজ্ঞাপন

উক্ত জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ২০ জুন(রবিবার)শেরপুরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছে।এই দিনে শেরপুরে ৬১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।যার মধ্যে শেরপুর সদর উপজেলায় ৫৫ জন।১ জুন থেকে ২০ জুন পর্যন্ত শেরপুরে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩৮ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, ৩৩৮ জনের মধ্যে ২৭৯ জনের বাড়ি সদর উপজেলায়।মে মাসে জেলায় মোট আক্রান্ত ছিল ৬৮ জন যার মধ্যে সদর উপজেলায় আক্রান্ত ছিলেন ১৯ জন।এপ্রিলে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৯ জন যার মধ্যে শেরপুর সদরে ১৭ জন।মে মাসে জেলায় আক্রান্তের শতকরা হার ছিল ১১.৪।আর এ মাসের ২০ দিনেই ওই সংখ্যা দ্বিগুণের বেশি।

শেরপুর সদর উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোবারক হোসেন বলেছেন, শেরপুর সদরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখনই কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।না হলে অবস্থা ভয়াবহ হতে পারে।
আরও পড়ুন: কুমিল্লা-৫ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন অ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খান
সূত্র: গণমাধ্যমস।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা







x

শেরপুরে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী

প্রকাশিত : ০১:৪০:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জুন ২০২১
print news

ময়মনসিংহ বিভাগের শেরপুর জেলায় ১ম করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৫ এপ্রিল।এতদিন করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এ বছরে জুন মাস শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিনিয়ত লাফিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী।প্রতিদিন তৈরি হচ্ছে শনাক্তের নতুন রেকর্ড।অন্যান্য উপজেলায় কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও শেরপুর সদরের অবস্থা নাজুক।যার কারনে সদর উপজেলায় সর্বত্র আতংক বিরাজ করছে।সবকিছু স্বাভাবিক থাকলেও গত ১১ জুন থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত শেরপুর পৌর এলাকার জন্য ৯ দফা কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।

বিজ্ঞাপন

উক্ত জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ২০ জুন(রবিবার)শেরপুরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছে।এই দিনে শেরপুরে ৬১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।যার মধ্যে শেরপুর সদর উপজেলায় ৫৫ জন।১ জুন থেকে ২০ জুন পর্যন্ত শেরপুরে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩৮ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, ৩৩৮ জনের মধ্যে ২৭৯ জনের বাড়ি সদর উপজেলায়।মে মাসে জেলায় মোট আক্রান্ত ছিল ৬৮ জন যার মধ্যে সদর উপজেলায় আক্রান্ত ছিলেন ১৯ জন।এপ্রিলে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৯ জন যার মধ্যে শেরপুর সদরে ১৭ জন।মে মাসে জেলায় আক্রান্তের শতকরা হার ছিল ১১.৪।আর এ মাসের ২০ দিনেই ওই সংখ্যা দ্বিগুণের বেশি।

শেরপুর সদর উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোবারক হোসেন বলেছেন, শেরপুর সদরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখনই কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।না হলে অবস্থা ভয়াবহ হতে পারে।
আরও পড়ুন: কুমিল্লা-৫ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন অ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খান
সূত্র: গণমাধ্যমস।