ঢাকা ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




লালমনিরহাটে এলাকার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টায় মোটরসাইকেল ও টাকা ছিনতাইয়ের মিথ্যা অভিযোগ

মামুনুর রশিদ,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত : ১২:০৮:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল ২০২২ ১৬১ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

মামুনুর রশিদ,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ ১৩ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮ টায় দিনে দুপুরে ছিনতাই হয়ে যাওয়া মোটর সাইকেল টি উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ। মোটরসাইকেল উদ্ধারের পর রায়হান স্বীকার করে চাঞ্চল্যকর ছিনতাইয়ের ঘটনাটি নাটক ছিল।

এদিকে কয়েকটি মিডিয়ায় প্রচার হয় দিনে দুপুরে মোটর সাইকেল ছিনতাই।

সদর থানা পুলিশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে একটি চক্র দীর্ঘ দিন ধরে উৎপেতে ছিল তারা দিনে দুপুরে ছিনতাইয়ের বিষয়টিকে কাজে লাগিয়ে যোগাযোগ মাধ্যমে সদরের আইন শৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে মর্মে প্রচার করতে থাকে।

বিজ্ঞাপন

সদর থানা পুলিশ গুরত্বের সাথে মোটর সাইকেল উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য,গতকাল  মঙ্গলবার দুপুরে জেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের আইরখামার বাজার হতে সদর থানার পঞ্চগ্রাম  ইউনিয়নের মাঝাপাড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র আবু রাইহানের(৩০) ব্যবহ্নত মোটর সাইকেলটি দিনে দুপুর ছিনতাই হয়।  এমন একটি অভিযোগে রাত এক টার সময়  লালমনিরহাট সদর থানা মামলা দায়ের হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেল উদ্ধার ও ছিনতাইকারি গ্রেফতারে  অভিযানে নামে।

বুধবার রাত ৮ টায় লালমনিরহাট সদর উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের   আইরখামার গ্রামে মজিবর রহমানের পুত্র মিলন মিয়া(২৯) কাছ হতে মোটরসাইকেল উদ্ধার করে সদর থানা কর্তব্যরত এস আই মাইদুল সহ গ্রামের প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান ঝঞ্জু । মিলন মিয়া বড়বাড়ির আইরখামার  বাজারের একজন প্রতিষ্ঠিত রেডি টি’র ডিলার। মোটরসাইকেল ছিনতায়ের অভিযোগে দায়ের করা মামলার বাদি আবু রাইহান তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের একজন পুরাতন কর্মচারী।  এক বছর আগে দেনা- পাওনা পরিশোধ না করে রেডিটির ডিলারের কর্মচারীর চাকুরি ছেড়ে দেয়। মঙ্গলবার পাওনা পরিশোধ করতে না পাওয়ায় ডিলার মোটরসাইকেল আটকে রাখে। পাওনা ২০ হাজার টাকার জন্য  মোটরসাইকেলটি জিম্মায় রাখে। পাওনাদার কে ফাঁসাতে মিথ্যে দিনে দুপুরে মোটরসাইকেল ছিনতাই হয় বলে থানায় মামলা করে। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান,  মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্যটি সামনে আসে। সেখানে ছিনতাইয়ের কোন ঘটনা ঘটেনি। মোটরসাইকেল উদ্ধার করে মালিককে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা




x

লালমনিরহাটে এলাকার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টায় মোটরসাইকেল ও টাকা ছিনতাইয়ের মিথ্যা অভিযোগ

প্রকাশিত : ১২:০৮:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল ২০২২
print news

মামুনুর রশিদ,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ ১৩ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮ টায় দিনে দুপুরে ছিনতাই হয়ে যাওয়া মোটর সাইকেল টি উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ। মোটরসাইকেল উদ্ধারের পর রায়হান স্বীকার করে চাঞ্চল্যকর ছিনতাইয়ের ঘটনাটি নাটক ছিল।

এদিকে কয়েকটি মিডিয়ায় প্রচার হয় দিনে দুপুরে মোটর সাইকেল ছিনতাই।

সদর থানা পুলিশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে একটি চক্র দীর্ঘ দিন ধরে উৎপেতে ছিল তারা দিনে দুপুরে ছিনতাইয়ের বিষয়টিকে কাজে লাগিয়ে যোগাযোগ মাধ্যমে সদরের আইন শৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে মর্মে প্রচার করতে থাকে।

বিজ্ঞাপন

সদর থানা পুলিশ গুরত্বের সাথে মোটর সাইকেল উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য,গতকাল  মঙ্গলবার দুপুরে জেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের আইরখামার বাজার হতে সদর থানার পঞ্চগ্রাম  ইউনিয়নের মাঝাপাড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র আবু রাইহানের(৩০) ব্যবহ্নত মোটর সাইকেলটি দিনে দুপুর ছিনতাই হয়।  এমন একটি অভিযোগে রাত এক টার সময়  লালমনিরহাট সদর থানা মামলা দায়ের হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেল উদ্ধার ও ছিনতাইকারি গ্রেফতারে  অভিযানে নামে।

বুধবার রাত ৮ টায় লালমনিরহাট সদর উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের   আইরখামার গ্রামে মজিবর রহমানের পুত্র মিলন মিয়া(২৯) কাছ হতে মোটরসাইকেল উদ্ধার করে সদর থানা কর্তব্যরত এস আই মাইদুল সহ গ্রামের প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান ঝঞ্জু । মিলন মিয়া বড়বাড়ির আইরখামার  বাজারের একজন প্রতিষ্ঠিত রেডি টি’র ডিলার। মোটরসাইকেল ছিনতায়ের অভিযোগে দায়ের করা মামলার বাদি আবু রাইহান তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের একজন পুরাতন কর্মচারী।  এক বছর আগে দেনা- পাওনা পরিশোধ না করে রেডিটির ডিলারের কর্মচারীর চাকুরি ছেড়ে দেয়। মঙ্গলবার পাওনা পরিশোধ করতে না পাওয়ায় ডিলার মোটরসাইকেল আটকে রাখে। পাওনা ২০ হাজার টাকার জন্য  মোটরসাইকেলটি জিম্মায় রাখে। পাওনাদার কে ফাঁসাতে মিথ্যে দিনে দুপুরে মোটরসাইকেল ছিনতাই হয় বলে থানায় মামলা করে। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম জানান,  মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্যটি সামনে আসে। সেখানে ছিনতাইয়ের কোন ঘটনা ঘটেনি। মোটরসাইকেল উদ্ধার করে মালিককে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।