ঢাকা ০১:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




বিশিষ্ট সমাজসেবক যিদনী আকন্দ’র (নেত্রকোনা) জন্মদিন

মো সাদ্দাম হোসেন, নেত্রকোনা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : ০৯:০২:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ জুন ২০২১ ৬৮৭ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

“স্বেচ্ছায় করি রক্তদান

আমার রক্তে বাঁচুক প্রাণ”

এই স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশের হাজারো স্বেচ্ছাসেবী ভাই-বোনেরা দেশের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাচ্ছে। অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে তারা দেশ ও দেশের সকল মানুষের জন্য। তাদের মুখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে মুমূর্ষু কোন  রোগী যেন রক্তের অভাবে মৃত্যুর মুখে পরিচালিত না হয়।

বিজ্ঞাপন

তেমনি এক ভাইয়ের কথা বলবো তিনি আর কেউ নন, এম.এ পড়ুয়া আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

“যিদনী আকন্দ লালন” তার পৈতৃক নিবাস হচ্ছে নেত্রকোণা জেলার বারহাট্টা উপজেলায়, তেলীকুড়ি গ্রামে। আর এখানেই উনার বেড়ে ওঠা। পড়াশোনায় তিনি আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস নিয়ে মাস্টার্স করতেছেন।

ছোটবেলা থেকেই  মানুষের  সেবায় নিজেকে আত্মপ্রকাশ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন। তারই সূত্র ধরে তিনি যোগদান করেন রক্তদান সংগঠনে। প্রথমে তিনি ছিলেন “পাপড়ি রক্তদান ফাউন্ডেশন” এর সভাপতি, মোহনগঞ্জ উপজেলা পরে আবার সভাপতি নেত্রকোনা জেলা। আর সেখান থেকেই শুরু হয় রক্তদান সংগঠনে  নিজের আত্মপ্রকাশ। তারপরে একে একে বহু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে অবতরণ।

বর্তমানে  “স্বেচ্ছায় রক্তদান ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ” নেত্রকোনা জেলা শাখার সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করতেছেন। তাছাড়াও তিনি একাধিক সংগঠনে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি “নেত্রকোনা ব্লাড ডোনার ক্লাব” এর প্রতিষ্ঠাতা।

তার পাশাপাশি তিনি বেশ কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে সাংবাদিকতাও করছেন।

নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ এমনকি দেশের বিভিন্ন জায়গায় অবদান রেখেছে। যে, যেখান থেকেই উনাকে ডাক দেয় মুমূর্ষু রোগীর এক ব্যাগ বা তারও অধিক রক্ত লাগবে সাথে সাথেই  উনার টীমের সকলকে অবগত করেন আর সেখান থেকেই কোন না কোন রক্তদাতা স্বেচ্ছায় রক্তদানে সাড়াদেন, তারপর রোগীর লোকের সাথে যোগাযোগ করে ডোনারকে পাঠিয়ে দেন রক্তদান করতে। উনি নিজেও রক্তদাতা,বেশ কয়েকবার রক্তদান করেছেন। আর এভাবেই তিনি অসহায়দের সহযোগিতা করে থাকেন।

এই পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও সংস্থা থেকে সম্মাননা পদক অর্জন করেছেন। নেত্রকোনা জেলা তথাপি ময়মনসিংহ অঞ্চলের একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক,মানবপ্রেমী তিনি।

৩০শে জুন ২০২১ তার জন্মদিন। দেশের পরিস্থিতি ভেবে সামান্য পরিসরে পারিবারিকভাবে পালিত হয়েছে জন্মদিনের অনুষ্ঠান। দেশের শুভাকাঙ্ক্ষী সকল স্বেচ্ছাসেবী, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উনাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পাঠান।

পরিশেষে, “যিদনী আকন্দ লালন” বললেন

আলহামদুলিল্লাহ, আমার জন্য আপনারা সকলেই দোয়া করবেন। সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ সবাই আমাকে ভালোবাসেন আমিও আপনাদের সবাইকে  ভালোবাসি।  আমার প্রতি আপনারা যে ভালোবাসা প্রদর্শন  করেছেন, সত্যিই আমি মুগ্ধ।

দোয়া করবেন যেন, বাকি জীবনটা মানুষের সেবায় কাটিয়ে দিতে পারি,সকলকে ধন্যবাদ।
আরও পড়ুন: নেত্রকোনার খালিয়াজুরির সরকারি কৃষ্ণপুর হাজী আলী আকবর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের অভিযোগ

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা







x

বিশিষ্ট সমাজসেবক যিদনী আকন্দ’র (নেত্রকোনা) জন্মদিন

প্রকাশিত : ০৯:০২:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ জুন ২০২১
print news

“স্বেচ্ছায় করি রক্তদান

আমার রক্তে বাঁচুক প্রাণ”

এই স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশের হাজারো স্বেচ্ছাসেবী ভাই-বোনেরা দেশের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাচ্ছে। অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে তারা দেশ ও দেশের সকল মানুষের জন্য। তাদের মুখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে মুমূর্ষু কোন  রোগী যেন রক্তের অভাবে মৃত্যুর মুখে পরিচালিত না হয়।

বিজ্ঞাপন

তেমনি এক ভাইয়ের কথা বলবো তিনি আর কেউ নন, এম.এ পড়ুয়া আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

“যিদনী আকন্দ লালন” তার পৈতৃক নিবাস হচ্ছে নেত্রকোণা জেলার বারহাট্টা উপজেলায়, তেলীকুড়ি গ্রামে। আর এখানেই উনার বেড়ে ওঠা। পড়াশোনায় তিনি আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস নিয়ে মাস্টার্স করতেছেন।

ছোটবেলা থেকেই  মানুষের  সেবায় নিজেকে আত্মপ্রকাশ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন। তারই সূত্র ধরে তিনি যোগদান করেন রক্তদান সংগঠনে। প্রথমে তিনি ছিলেন “পাপড়ি রক্তদান ফাউন্ডেশন” এর সভাপতি, মোহনগঞ্জ উপজেলা পরে আবার সভাপতি নেত্রকোনা জেলা। আর সেখান থেকেই শুরু হয় রক্তদান সংগঠনে  নিজের আত্মপ্রকাশ। তারপরে একে একে বহু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে অবতরণ।

বর্তমানে  “স্বেচ্ছায় রক্তদান ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ” নেত্রকোনা জেলা শাখার সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করতেছেন। তাছাড়াও তিনি একাধিক সংগঠনে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি “নেত্রকোনা ব্লাড ডোনার ক্লাব” এর প্রতিষ্ঠাতা।

তার পাশাপাশি তিনি বেশ কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে সাংবাদিকতাও করছেন।

নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ এমনকি দেশের বিভিন্ন জায়গায় অবদান রেখেছে। যে, যেখান থেকেই উনাকে ডাক দেয় মুমূর্ষু রোগীর এক ব্যাগ বা তারও অধিক রক্ত লাগবে সাথে সাথেই  উনার টীমের সকলকে অবগত করেন আর সেখান থেকেই কোন না কোন রক্তদাতা স্বেচ্ছায় রক্তদানে সাড়াদেন, তারপর রোগীর লোকের সাথে যোগাযোগ করে ডোনারকে পাঠিয়ে দেন রক্তদান করতে। উনি নিজেও রক্তদাতা,বেশ কয়েকবার রক্তদান করেছেন। আর এভাবেই তিনি অসহায়দের সহযোগিতা করে থাকেন।

এই পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও সংস্থা থেকে সম্মাননা পদক অর্জন করেছেন। নেত্রকোনা জেলা তথাপি ময়মনসিংহ অঞ্চলের একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক,মানবপ্রেমী তিনি।

৩০শে জুন ২০২১ তার জন্মদিন। দেশের পরিস্থিতি ভেবে সামান্য পরিসরে পারিবারিকভাবে পালিত হয়েছে জন্মদিনের অনুষ্ঠান। দেশের শুভাকাঙ্ক্ষী সকল স্বেচ্ছাসেবী, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উনাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পাঠান।

পরিশেষে, “যিদনী আকন্দ লালন” বললেন

আলহামদুলিল্লাহ, আমার জন্য আপনারা সকলেই দোয়া করবেন। সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ সবাই আমাকে ভালোবাসেন আমিও আপনাদের সবাইকে  ভালোবাসি।  আমার প্রতি আপনারা যে ভালোবাসা প্রদর্শন  করেছেন, সত্যিই আমি মুগ্ধ।

দোয়া করবেন যেন, বাকি জীবনটা মানুষের সেবায় কাটিয়ে দিতে পারি,সকলকে ধন্যবাদ।
আরও পড়ুন: নেত্রকোনার খালিয়াজুরির সরকারি কৃষ্ণপুর হাজী আলী আকবর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের অভিযোগ