ঢাকা ১২:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




ফরচুন বরিশালের সংগ্রহ ১৯৪

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ০৮:৫৮:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৩ ৯৩ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

ফরচুন বরিশালের সংগ্রহ ১৯৪

ফরচুন বরিশালের হয়ে দারুণ এক ঝড় ইনিংস খেললেন সাকিব আল হাসান। সিলেট স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে ঝড়ের গতিতে ফিফটি করেছেন তিনি। সাকিবরে ব্যাটের উপর ভর করে নির্ধারিত ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রান করেছে বরিশাল। জয়ের জন্য ১৯৫ রান করতে হবে মাশরাফী বাহিনীকে।

মাশরাফী সিলেটের ও সাকিব বরিশালের অধিনায়ক হলেও মুখোমুখি লড়াইয়ে দুদলই ভিন্ন দলনেতা নিয়ে মাঠে নামে। সিলেটকে মুশফিক ও বরিশালকে নেতৃত্ব দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। অধিনায়ক বদলের ম্যাচে টস জিতে এনামুল হক ও চতুরঙ্গ সিলভার ব্যাটে পাওয়ার প্লেতে দারুণ সূচনা পায় বরিশাল।

বরিশালের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৬৭ রানের মাথায়। এ সময় মাশরাফীর বলে অ্যাকারম্যানকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এনামুল। ২১ বলে ২৯ রান করেন তিনি। এনামুল ফেরার কিছুক্ষণের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আরেক ওপেনার সিলভা। ২৫ বলে ৩৬ রান করেন লঙ্কান এই ক্রিকেটার। ওয়ানডাউনে নামা ইফতিখার আহমেদ খুব বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি। ১০ বলে ১৩ রান করে মাশরাফীর শিকার হন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সাকিবকে যোগ্য সঙ্গ দেয়ার আগেই ফিরে যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যদিও ১২ বলে ১৯ রানের গুরুত্বপূর্ণ একটি ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে। একপ্রান্তে সাকিব অবিচল থাকলেও বিদায় নেন হায়দার আলি। রেজাউর রহমানের বলে আউট হওয়া পাকিস্তানি ক্রিকেটার ৬ বলে করেন মাত্র ৩ রান। সাকিব অর্ধশতক পূর্ণ করেন মাত্র ২৬ বলে।

বরিশালের ইনিংসের মূল কারিগর সাকিব ১৯ ওভার পর্যন্ত ক্রিজে থেকে করেন ৬৭ রান। তার ৩২ বলের ইনিংসটিতে আছে ৭টি চার ও ৪টি ছয়ের মার। বাকিদের মধ্যে করিম জানাত ১৭ ও মিরাজ এক রান করেন।

সিলেটের হয়ে তিন উইকেট নেন মাশরাফী। একটি করে উইকেট পান ইমাদ ওয়াসিম, রেজাউর ও থিসারা পেরেরা।




ফেসবুকে আমরা







x

ফরচুন বরিশালের সংগ্রহ ১৯৪

প্রকাশিত : ০৮:৫৮:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৩
print news

ফরচুন বরিশালের সংগ্রহ ১৯৪

ফরচুন বরিশালের হয়ে দারুণ এক ঝড় ইনিংস খেললেন সাকিব আল হাসান। সিলেট স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে ঝড়ের গতিতে ফিফটি করেছেন তিনি। সাকিবরে ব্যাটের উপর ভর করে নির্ধারিত ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রান করেছে বরিশাল। জয়ের জন্য ১৯৫ রান করতে হবে মাশরাফী বাহিনীকে।

মাশরাফী সিলেটের ও সাকিব বরিশালের অধিনায়ক হলেও মুখোমুখি লড়াইয়ে দুদলই ভিন্ন দলনেতা নিয়ে মাঠে নামে। সিলেটকে মুশফিক ও বরিশালকে নেতৃত্ব দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। অধিনায়ক বদলের ম্যাচে টস জিতে এনামুল হক ও চতুরঙ্গ সিলভার ব্যাটে পাওয়ার প্লেতে দারুণ সূচনা পায় বরিশাল।

বরিশালের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৬৭ রানের মাথায়। এ সময় মাশরাফীর বলে অ্যাকারম্যানকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এনামুল। ২১ বলে ২৯ রান করেন তিনি। এনামুল ফেরার কিছুক্ষণের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আরেক ওপেনার সিলভা। ২৫ বলে ৩৬ রান করেন লঙ্কান এই ক্রিকেটার। ওয়ানডাউনে নামা ইফতিখার আহমেদ খুব বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি। ১০ বলে ১৩ রান করে মাশরাফীর শিকার হন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সাকিবকে যোগ্য সঙ্গ দেয়ার আগেই ফিরে যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যদিও ১২ বলে ১৯ রানের গুরুত্বপূর্ণ একটি ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে। একপ্রান্তে সাকিব অবিচল থাকলেও বিদায় নেন হায়দার আলি। রেজাউর রহমানের বলে আউট হওয়া পাকিস্তানি ক্রিকেটার ৬ বলে করেন মাত্র ৩ রান। সাকিব অর্ধশতক পূর্ণ করেন মাত্র ২৬ বলে।

বরিশালের ইনিংসের মূল কারিগর সাকিব ১৯ ওভার পর্যন্ত ক্রিজে থেকে করেন ৬৭ রান। তার ৩২ বলের ইনিংসটিতে আছে ৭টি চার ও ৪টি ছয়ের মার। বাকিদের মধ্যে করিম জানাত ১৭ ও মিরাজ এক রান করেন।

সিলেটের হয়ে তিন উইকেট নেন মাশরাফী। একটি করে উইকেট পান ইমাদ ওয়াসিম, রেজাউর ও থিসারা পেরেরা।