ঢাকা ১২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




দিনেশ গুনাবর্ধনে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ০২:৩৩:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২ ১৪৪ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

দিনেশ গুনাবর্ধনে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন

শ্রীলঙ্কায় নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দিনেশ গুনাবর্ধনে শপথ নিয়েছেন বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার গুনাবর্ধনের শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নতুন প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে। আজ মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যদেরও শপথ নেয়ার কথা রয়েছে।

দেশটির কলম্বো শহরের সরকারি স্থাপনায় অবস্থান নেয়া বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানের কয়েক ঘণ্টার মাথায় এই শপথ অনুষ্ঠান হলো।

বিজ্ঞাপন

অভিযানে বিক্ষোভস্থল আংশিক ফাঁকা করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হয়েছে বেশ কয়েকজনকে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে রনিল বিক্রমাসিংহে শপথ নেয়ার পর এ অভিযান চালানো হয়।

প্রসঙ্গত,বুধবার পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত ভোটে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন রনিল বিক্রমাসিংহে। ২২৫ আসনের পার্লামেন্টে তিনি ভোট পেয়েছেন ১৩৪টি। বিক্ষোভকারীরা তাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে নেননি। বিক্ষোভকারীদের ওপর রনিল বিক্রমাসিংহে যে চড়াও হতে পারেন, সেই ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিলেন।

শপথ নেয়ার পরপরই তিনি বলেছিলেন, সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা কিংবা সরকারি কোনো ভবন দখল নেয়া কোনো গণতান্ত্রিক কার্যক্রম নয়। তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, এ ধরনের কোনো কিছু করা হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।




ফেসবুকে আমরা







x

দিনেশ গুনাবর্ধনে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন

প্রকাশিত : ০২:৩৩:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২
print news

দিনেশ গুনাবর্ধনে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন

শ্রীলঙ্কায় নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দিনেশ গুনাবর্ধনে শপথ নিয়েছেন বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার গুনাবর্ধনের শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নতুন প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে। আজ মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যদেরও শপথ নেয়ার কথা রয়েছে।

দেশটির কলম্বো শহরের সরকারি স্থাপনায় অবস্থান নেয়া বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানের কয়েক ঘণ্টার মাথায় এই শপথ অনুষ্ঠান হলো।

বিজ্ঞাপন

অভিযানে বিক্ষোভস্থল আংশিক ফাঁকা করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হয়েছে বেশ কয়েকজনকে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে রনিল বিক্রমাসিংহে শপথ নেয়ার পর এ অভিযান চালানো হয়।

প্রসঙ্গত,বুধবার পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত ভোটে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন রনিল বিক্রমাসিংহে। ২২৫ আসনের পার্লামেন্টে তিনি ভোট পেয়েছেন ১৩৪টি। বিক্ষোভকারীরা তাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে নেননি। বিক্ষোভকারীদের ওপর রনিল বিক্রমাসিংহে যে চড়াও হতে পারেন, সেই ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিলেন।

শপথ নেয়ার পরপরই তিনি বলেছিলেন, সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা কিংবা সরকারি কোনো ভবন দখল নেয়া কোনো গণতান্ত্রিক কার্যক্রম নয়। তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, এ ধরনের কোনো কিছু করা হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।