ঢাকা ১০:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম‌‌‌” ফোন দিলেই পৌঁছে দিচ্ছে ফ্রি অক্সিজেন সিলিন্ডার

মোঃ তপু মাঝি, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত : ০৭:৪৪:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১ ৪৯০ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

মোঃ তপু মাঝি, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠি জেলা সদরে এই করোনাকালীন সময়ে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটি। মানব সেবায় সাংবাদিকগন এই প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত বা উপসর্গের বেশির ভাগ রুগী শ্বাসকষ্ট সহ নানা সমস্যায় ভুগে থাকেন। বর্তমানে অনেক রুগী হাসপাতালে চিকিৎসা সহ নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবা নিয়ে থাকেন। আবার বেশির ভাগ করোনা রুগীর হঠাৎ করে দেহে অক্সিজেন ঘাটতি দেখা দিয়ে থাকে।  কিছু মুহূর্তে বুঝে ওঠার আগেই অক্সিজেন সল্পতার কারণে রুগীর মৃত্যু হয়ে থাকে।

এমন মানব সেবা কাজে সংবাদকর্মীরা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দিনরাত সেবা দানের জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। ফোন করলেই বিনামূল্যে পৌঁছে যাবে অক্সিজেন সিলিন্ডার আপনার বাড়িতে।

বিজ্ঞাপন

এই উদ্বেগের বিষয় ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম এর সভাপতি সাংবাদিক মোঃ মনির হোসেন বলেন অক্সিজেন সিলিন্ডার ক্রয় করতে কর্জ অর্থাৎ ধার-দেনা করে সংগ্রহ করেছেন। আরো বলেন ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম এর সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল কাদের খান, উপদেষ্টা মোঃ জামাল হোসেন, সহ-সভাপতি সাংবাদিক রিয়াজ মোরশেদ, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোঃ আরিফুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক মোঃ আব্দুল রহমান সুমন, স্বেচ্ছাসেবক রিমা আক্তার আমার সকলের সহযোগিতায় ০৭/০৭/২০২১ এই ফ্রী অক্সিজেন জন্য পরিচালনা শুরু করে কিছু সংখ্যক মানুষ অক্সিজেনের জন্য সহযোগিতা করেছেন। আমরা এখন পর্যন্ত ১০ জন করোনা আক্রান্ত রোগীদের ফ্রি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিতে পেরেছি। আরো বলেন এই মহামারী মোকাবিলা করা কারো একার পক্ষে সম্ভব না তাই আপনিও পারেন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। বিকাশ নং- ০১৬৫০-০০১৯৩৪

ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটির ফ্রি অক্সিজেন জুন আরো একটি শাখা চালু ঝালকাঠি সদর ৩ নং নবগ্রাম ইউনিয়নের নবগ্রাম বাজার সেখানে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন সাংবাদিক ইমাম বিমান।

ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটির আহ্বান, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে আসবেন না। মাক্স ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা







x

ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম‌‌‌” ফোন দিলেই পৌঁছে দিচ্ছে ফ্রি অক্সিজেন সিলিন্ডার

প্রকাশিত : ০৭:৪৪:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১
print news

মোঃ তপু মাঝি, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠি জেলা সদরে এই করোনাকালীন সময়ে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটি। মানব সেবায় সাংবাদিকগন এই প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত বা উপসর্গের বেশির ভাগ রুগী শ্বাসকষ্ট সহ নানা সমস্যায় ভুগে থাকেন। বর্তমানে অনেক রুগী হাসপাতালে চিকিৎসা সহ নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবা নিয়ে থাকেন। আবার বেশির ভাগ করোনা রুগীর হঠাৎ করে দেহে অক্সিজেন ঘাটতি দেখা দিয়ে থাকে।  কিছু মুহূর্তে বুঝে ওঠার আগেই অক্সিজেন সল্পতার কারণে রুগীর মৃত্যু হয়ে থাকে।

এমন মানব সেবা কাজে সংবাদকর্মীরা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দিনরাত সেবা দানের জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। ফোন করলেই বিনামূল্যে পৌঁছে যাবে অক্সিজেন সিলিন্ডার আপনার বাড়িতে।

বিজ্ঞাপন

এই উদ্বেগের বিষয় ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম এর সভাপতি সাংবাদিক মোঃ মনির হোসেন বলেন অক্সিজেন সিলিন্ডার ক্রয় করতে কর্জ অর্থাৎ ধার-দেনা করে সংগ্রহ করেছেন। আরো বলেন ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম এর সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল কাদের খান, উপদেষ্টা মোঃ জামাল হোসেন, সহ-সভাপতি সাংবাদিক রিয়াজ মোরশেদ, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোঃ আরিফুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক মোঃ আব্দুল রহমান সুমন, স্বেচ্ছাসেবক রিমা আক্তার আমার সকলের সহযোগিতায় ০৭/০৭/২০২১ এই ফ্রী অক্সিজেন জন্য পরিচালনা শুরু করে কিছু সংখ্যক মানুষ অক্সিজেনের জন্য সহযোগিতা করেছেন। আমরা এখন পর্যন্ত ১০ জন করোনা আক্রান্ত রোগীদের ফ্রি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিতে পেরেছি। আরো বলেন এই মহামারী মোকাবিলা করা কারো একার পক্ষে সম্ভব না তাই আপনিও পারেন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। বিকাশ নং- ০১৬৫০-০০১৯৩৪

ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটির ফ্রি অক্সিজেন জুন আরো একটি শাখা চালু ঝালকাঠি সদর ৩ নং নবগ্রাম ইউনিয়নের নবগ্রাম বাজার সেখানে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন সাংবাদিক ইমাম বিমান।

ঝালকাঠি মিডিয়া ফোরাম সমাজ কল্যাণ সোসাইটির আহ্বান, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে আসবেন না। মাক্স ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।