ঢাকা ০১:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




জনপ্রিয়তার শীর্ষে আমিনুল ইসলাম আমিন

তানজির আহমেদ সানি, ঢাকা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : ১০:১৯:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ৮৭৬ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

তানজির আহমেদ সানি, ঢাকা প্রতিনিধি: জাতির বৃহত্তর স্বার্থে নিজেকে উৎসর্গ করার জন্য, আমি সর্বাত্মক নাটকীয় ক্রিয়াকলাপ স্থাপন করতে চাই, যেখানে আমার কর্মকাণ্ড ও কাজের জন্য এই দেশের মানুষ উপকৃত হবে, যার দ্বারা জাতীয় পিতার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাস্তবায়ন করা হবে এবং দেশের উন্নয়নের ক্ষেত্রে দেশটি পৌঁছাবে যা জাতীয় পিতার স্বপ্ন ছিল এবং আমাদের ভাষায় “সোনার বাংলা” নামে ডাকা হবে। এমনটাই মন্তব্য করেছেন আমিনুল ইসলাম (আমিন)।

আমিনুল ইসলামের জন্মঃ ১লা মার্চ১৯৮১, মোহনপুর,উপজেলা মতলব উত্তর চাঁদপুর জেলায় জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতাঃ মনির হোসেন (মৃত), মাতা সাজেদা বেগম(মৃত)| আমিনুল ইসলাম (আমিন) বি.কম. সম্মান(অনার্স) এম.কম, এমবিএ করেন।

তার রাজনৈতিক কর্মকান্ড

বিজ্ঞাপন

সদস্য= শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপ-কমিটি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সাবেক সহ-সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ সাবেক সহ-সভাপতি= জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ(২০০৩-২০১০) | সাবেক সহ সভাপতি=ছেংগারচর মহাবিদ্যালয় ছাত্রলীগ(৯৭-৯৮) | সাবেক সভাপতি মােহনপুর উনিয়ন ছাত্রলীগ,মতলব(উঃ) চাঁদপুর। সাবেক সভাপতি= ২নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ, মােহনপুর মতলব,চাঁদপুর।

তিনি শিবির বিরােধী আন্দোলন =জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে শিবিরমুক্ত রাখার জন্য সক্রিয় নেতৃত্বে ছিলাম।১৭ইং জুলাই ২০০৬ইং শিবির বিরােধী সংঘর্ষে আহত হয়ে মেডিকেলে ভর্তি হই। ১৮ই জুলাই ২০০৬ জাতীয় দৈনিক ছবিসহ খবর ছাপা হয়। ১/১১ ভূমিকা= ১/১১ প্রেক্ষাপটে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নিরাজনীতিকরন প্রক্রিয়ায় বিরুদ্ধে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা কে মুক্ত করার জন্য রাজনৈতিক মাঠে সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছেন। আগষ্ঠ ২০০২ ইং অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে বিএনপি নেতা কর্মীরা হামলা কওে এবং মামলা করে আসামী করে।

মতলব উত্তরে কৃতি সন্তান শিক্ষিত সমাজ সেবক শিক্ষানুরাগী ও দুর্নীতিমুক্ত নেতা আমিনুল ইসলাম আমিন কে যথাপুযুক্ত মর্যাদাপূর্ণ স্থানের দেখতে চান সাধারণ জনগণ।

মতলব উত্তরের জনগণের সাথে কথা বলে জানা যায় আমিনুল ইসলাম আমিন একজন সৎ এবং যােগ্য ব্যক্তির দেশের উন্নয়ন ও এলাকাবাসী উন্নয়নের জন্য আমিনুল ইসলাম আমিন এর কোন বিকল্প নেই এবং মতলব উত্তরকে মাদকমুক্ত করতে সন্ত্রাস মুক্ত করতে আমিনুল ইসলাম আমিন এর বিকল্প অন্য কেউ নেই। তিনি মতলব উত্তরের উন্নয়নে সব সময় নিজেকে এগিয়ে রাখবেন।

আমিনুল ইসলাম আমিনের সাথে এক সাক্ষাৎকারে জানা যায় তাকে যদি দল থেকে মর্যাদাপূর্ণ স্থানে দেয়া হয় আর নাও দেওয়া হয় তার পড়েও তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নপূরণে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সর্বদা প্রস্তুত থাকবেন। এলাকাবাসী ও সাধারণ জনগণের ভালােবাসায় তিনি সব সময় এগিয়ে আছেন।

জনসমথনে এগিয়ে আছে এগিয়ে আছেন তৃণমূল থেকে উঠে আসা আমিনুল ইসলাম আমিন তিন ছােট বেলা থেকেই রাজনীতির সাথে জড়িত।

তৃণমূল থেকে উঠে আসা এই কর্মীকে যথাযথ স্থানে দেয়া হােক। বলে দাবি করেন তার সমর্থন গােষ্ঠী।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা







x

জনপ্রিয়তার শীর্ষে আমিনুল ইসলাম আমিন

প্রকাশিত : ১০:১৯:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২১
print news

তানজির আহমেদ সানি, ঢাকা প্রতিনিধি: জাতির বৃহত্তর স্বার্থে নিজেকে উৎসর্গ করার জন্য, আমি সর্বাত্মক নাটকীয় ক্রিয়াকলাপ স্থাপন করতে চাই, যেখানে আমার কর্মকাণ্ড ও কাজের জন্য এই দেশের মানুষ উপকৃত হবে, যার দ্বারা জাতীয় পিতার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাস্তবায়ন করা হবে এবং দেশের উন্নয়নের ক্ষেত্রে দেশটি পৌঁছাবে যা জাতীয় পিতার স্বপ্ন ছিল এবং আমাদের ভাষায় “সোনার বাংলা” নামে ডাকা হবে। এমনটাই মন্তব্য করেছেন আমিনুল ইসলাম (আমিন)।

আমিনুল ইসলামের জন্মঃ ১লা মার্চ১৯৮১, মোহনপুর,উপজেলা মতলব উত্তর চাঁদপুর জেলায় জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতাঃ মনির হোসেন (মৃত), মাতা সাজেদা বেগম(মৃত)| আমিনুল ইসলাম (আমিন) বি.কম. সম্মান(অনার্স) এম.কম, এমবিএ করেন।

তার রাজনৈতিক কর্মকান্ড

বিজ্ঞাপন

সদস্য= শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপ-কমিটি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সাবেক সহ-সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ সাবেক সহ-সভাপতি= জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ(২০০৩-২০১০) | সাবেক সহ সভাপতি=ছেংগারচর মহাবিদ্যালয় ছাত্রলীগ(৯৭-৯৮) | সাবেক সভাপতি মােহনপুর উনিয়ন ছাত্রলীগ,মতলব(উঃ) চাঁদপুর। সাবেক সভাপতি= ২নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ, মােহনপুর মতলব,চাঁদপুর।

তিনি শিবির বিরােধী আন্দোলন =জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে শিবিরমুক্ত রাখার জন্য সক্রিয় নেতৃত্বে ছিলাম।১৭ইং জুলাই ২০০৬ইং শিবির বিরােধী সংঘর্ষে আহত হয়ে মেডিকেলে ভর্তি হই। ১৮ই জুলাই ২০০৬ জাতীয় দৈনিক ছবিসহ খবর ছাপা হয়। ১/১১ ভূমিকা= ১/১১ প্রেক্ষাপটে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নিরাজনীতিকরন প্রক্রিয়ায় বিরুদ্ধে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা কে মুক্ত করার জন্য রাজনৈতিক মাঠে সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছেন। আগষ্ঠ ২০০২ ইং অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে বিএনপি নেতা কর্মীরা হামলা কওে এবং মামলা করে আসামী করে।

মতলব উত্তরে কৃতি সন্তান শিক্ষিত সমাজ সেবক শিক্ষানুরাগী ও দুর্নীতিমুক্ত নেতা আমিনুল ইসলাম আমিন কে যথাপুযুক্ত মর্যাদাপূর্ণ স্থানের দেখতে চান সাধারণ জনগণ।

মতলব উত্তরের জনগণের সাথে কথা বলে জানা যায় আমিনুল ইসলাম আমিন একজন সৎ এবং যােগ্য ব্যক্তির দেশের উন্নয়ন ও এলাকাবাসী উন্নয়নের জন্য আমিনুল ইসলাম আমিন এর কোন বিকল্প নেই এবং মতলব উত্তরকে মাদকমুক্ত করতে সন্ত্রাস মুক্ত করতে আমিনুল ইসলাম আমিন এর বিকল্প অন্য কেউ নেই। তিনি মতলব উত্তরের উন্নয়নে সব সময় নিজেকে এগিয়ে রাখবেন।

আমিনুল ইসলাম আমিনের সাথে এক সাক্ষাৎকারে জানা যায় তাকে যদি দল থেকে মর্যাদাপূর্ণ স্থানে দেয়া হয় আর নাও দেওয়া হয় তার পড়েও তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নপূরণে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সর্বদা প্রস্তুত থাকবেন। এলাকাবাসী ও সাধারণ জনগণের ভালােবাসায় তিনি সব সময় এগিয়ে আছেন।

জনসমথনে এগিয়ে আছে এগিয়ে আছেন তৃণমূল থেকে উঠে আসা আমিনুল ইসলাম আমিন তিন ছােট বেলা থেকেই রাজনীতির সাথে জড়িত।

তৃণমূল থেকে উঠে আসা এই কর্মীকে যথাযথ স্থানে দেয়া হােক। বলে দাবি করেন তার সমর্থন গােষ্ঠী।