ঢাকা ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে

আবুল কাশেম রুমন,সিলেট:
  • প্রকাশিত : ১০:৫৬:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩ ৪৪৫ বার পঠিত
কালের ধারা ২৪, অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে

আবুল কাশেম রুমন,সিলেট: সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে।

বিজ্ঞাপন

সময়ের গতিতে বিয়ে বাড়িতে চলছে খাওয়া ধাওয়া। বরযাত্রী নিয়ে বরও হাজির, কাজি এসে বিযের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, এমন সময় বেরসিক দ্বিতীয় স্ত্রী দুই সন্তান নিযে বিযে বাড়িতে হাজির। শুরু করেন কান্নাকাটি হৈ হুল্লোড়, ছিড়ে  ফেলেন বরের পোশাক, এরপর ভেঙে যায় তৃতীয় বিয়ের আয়োজন।

রোববার (৬ নভেম্বর)  দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের কবিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নজরে আসলে পরে এলাকার উপস্থিত লোকজন এনিয়ে বৈঠকে বসে স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া বিযের আয়োজন বন্ধ করে দেন।

পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঙ্গুর মিয়া বলেন, ঘটনা শুনে এলাকার গন্যমান্য লোকজনকে পাঠিয়ে  বিয়ের আয়োজন বন্ধ করেছি।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা







x

জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে

প্রকাশিত : ১০:৫৬:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩
print news

জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে

আবুল কাশেম রুমন,সিলেট: সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হাজারীতে ভেঙ্গে গেলো তৃতীয় বিয়ে।

বিজ্ঞাপন

সময়ের গতিতে বিয়ে বাড়িতে চলছে খাওয়া ধাওয়া। বরযাত্রী নিয়ে বরও হাজির, কাজি এসে বিযের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, এমন সময় বেরসিক দ্বিতীয় স্ত্রী দুই সন্তান নিযে বিযে বাড়িতে হাজির। শুরু করেন কান্নাকাটি হৈ হুল্লোড়, ছিড়ে  ফেলেন বরের পোশাক, এরপর ভেঙে যায় তৃতীয় বিয়ের আয়োজন।

রোববার (৬ নভেম্বর)  দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের কবিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নজরে আসলে পরে এলাকার উপস্থিত লোকজন এনিয়ে বৈঠকে বসে স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া বিযের আয়োজন বন্ধ করে দেন।

পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঙ্গুর মিয়া বলেন, ঘটনা শুনে এলাকার গন্যমান্য লোকজনকে পাঠিয়ে  বিয়ের আয়োজন বন্ধ করেছি।