ঢাকা ১২:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




টাঙ্গাইল-১ আসনের সাবেক সাংসদ সৈয়দা আশিকা আকবর মারা গেছেন

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ১০:৪০:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ এপ্রিল ২০২২ ২৬১ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

টাঙ্গাইল-১ আসনের সাবেক সাংসদ সৈয়দা আশিকা আকবর মারা গেছেন

আজ ২৫শে এপ্রিল, ২০২২ সকাল ৬ টায় ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘস্থায়ী বার্ধক্যজনিত জটিলতায় ভুগছিলেন এবং গত ১৬ই এপ্রিল, ২০২২ থেকে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

সৈয়দা আশিকা আকবরকে ১৯৮১ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশের সংসদের প্রথম সরাসরি নির্বাচিত সদস্য হিসাবে স্মরণ করা হয়। তাঁর পিতা একজন প্রাক্তন বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী, নবাবজাদা সৈয়দ হাসান আলী চৌধুরী, যিনি কৃষক প্রজা পার্টি এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলা ভাষার প্রথম প্রস্তাবক, প্রথম বাংলা সাপ্তাহিক পত্রিকা মিহির ও সুধাকরের প্রতিষ্ঠাতা এবং ধনবাড়ীর নবাব জনাব নবাব বাহাদুর সৈয়দ নওয়াব আলী চৌধুরীর নাতনী। সৈয়দা আশিকা আকবরের চাচাতো ভাই ছিলেন পাকিস্তানের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী( বগুড়া)।

বিজ্ঞাপন

সৈয়দা আশিকা আকবর বাংলাদেশ মহিলা সমিতির বিভাগীয় আহ্বায়ক হিসাবে ১৯৭০ এবং ৮০ এর দশকে ঢাকা বিভাগের রাজনীতিতে নারীদের নিয়ে আসার মাধ্যমে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে তার কাজের জন্য স্বীকৃত। তিনি টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলায় গার্লস স্কুল অ্যান্ড ডিগ্রি কলেজও স্থাপন করেন।

মরহুমার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের তাঁর গুলশান ২, ঢাকার বাসা বা টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী নবাব মঞ্জিলে যেতে হবে। তার নামাজে জানাজা ২৫শে এপ্রিল, ২০২২ সকাল ১১ টায় গুলশান ২, ৬৪ নং রোডের গুলশান সোসাইটি মসজিদে প্রথম জানাজা এবং আসরের নামাজের পরে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী ঈদগাহ ময়দানে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

সৈয়দা আশিকা আকবরের দাফন ধনবাড়ী উপজেলার ধনবাড়ী নবাব মঞ্জিলের পাশে পারিবারিক কবরস্থানে সম্পন্ন হবে।

ট্যাগস :




ফেসবুকে আমরা




x

টাঙ্গাইল-১ আসনের সাবেক সাংসদ সৈয়দা আশিকা আকবর মারা গেছেন

প্রকাশিত : ১০:৪০:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ এপ্রিল ২০২২
print news

টাঙ্গাইল-১ আসনের সাবেক সাংসদ সৈয়দা আশিকা আকবর মারা গেছেন

আজ ২৫শে এপ্রিল, ২০২২ সকাল ৬ টায় ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘস্থায়ী বার্ধক্যজনিত জটিলতায় ভুগছিলেন এবং গত ১৬ই এপ্রিল, ২০২২ থেকে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

সৈয়দা আশিকা আকবরকে ১৯৮১ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশের সংসদের প্রথম সরাসরি নির্বাচিত সদস্য হিসাবে স্মরণ করা হয়। তাঁর পিতা একজন প্রাক্তন বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী, নবাবজাদা সৈয়দ হাসান আলী চৌধুরী, যিনি কৃষক প্রজা পার্টি এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলা ভাষার প্রথম প্রস্তাবক, প্রথম বাংলা সাপ্তাহিক পত্রিকা মিহির ও সুধাকরের প্রতিষ্ঠাতা এবং ধনবাড়ীর নবাব জনাব নবাব বাহাদুর সৈয়দ নওয়াব আলী চৌধুরীর নাতনী। সৈয়দা আশিকা আকবরের চাচাতো ভাই ছিলেন পাকিস্তানের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী( বগুড়া)।

বিজ্ঞাপন

সৈয়দা আশিকা আকবর বাংলাদেশ মহিলা সমিতির বিভাগীয় আহ্বায়ক হিসাবে ১৯৭০ এবং ৮০ এর দশকে ঢাকা বিভাগের রাজনীতিতে নারীদের নিয়ে আসার মাধ্যমে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে তার কাজের জন্য স্বীকৃত। তিনি টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলায় গার্লস স্কুল অ্যান্ড ডিগ্রি কলেজও স্থাপন করেন।

মরহুমার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের তাঁর গুলশান ২, ঢাকার বাসা বা টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী নবাব মঞ্জিলে যেতে হবে। তার নামাজে জানাজা ২৫শে এপ্রিল, ২০২২ সকাল ১১ টায় গুলশান ২, ৬৪ নং রোডের গুলশান সোসাইটি মসজিদে প্রথম জানাজা এবং আসরের নামাজের পরে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী ঈদগাহ ময়দানে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

সৈয়দা আশিকা আকবরের দাফন ধনবাড়ী উপজেলার ধনবাড়ী নবাব মঞ্জিলের পাশে পারিবারিক কবরস্থানে সম্পন্ন হবে।