ঢাকা ০১:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব গ্রেপ্তার

জাহাঙ্গীর আলম বাদল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
  • প্রকাশিত : ০৯:৩৬:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ অগাস্ট ২০২২ ২৬৭ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব গ্রেপ্তার

জাহাঙ্গীর আলম বাদল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক এক উপ-সচিবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বাড়ি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের পশ্চিম সোনারায়গ্রামে। তিনি ধর্ম মন্ত্রনালয়ের অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব (৬৬)।

পুলিশ জানায়, বাক প্রতিবন্ধীর বাড়ি সংলগ্ন ওই অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিবের একটি মৎস্য খামার রয়েছে। খামারের বসবাস করার সুবাদে তিনি ওই প্রতিবন্ধীর বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন। এক পর্যায় তিনি তাকে প্রতিবন্ধীর একটি ভাতার কার্ড করে দেন। এ কারণে বাক প্রতিবন্ধী শিশুটি মৎস্য খামারে আসা যাওয়া করত। এ সুযোগে তিনি শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। এক পর্যায় শিশুটি অন্তসত্তা হয়ে পড়ে। প্রতিবন্ধী ওই শিশুর কাছ থেকে তথ্য নিয়ে তার বাবা বাদী হয়ে সোমবার

দুপুরে সুন্দরগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। বিকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।প্রতিবন্ধী শিশুর বাবা জানান, তিনি একজন দিনমজুর। বাক প্রতিবন্ধী শিশুটি ছাড়া তার কেউ নেই।

বিজ্ঞাপন

তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।এসব বিষয়ে মামলা তদন্তকারি কর্মকর্তা ও সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : যুবলীগ নেতা নোবেলের উদ্যোগে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

তিনিবলেন, শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষা করে দেখা যায়, সে ২১ সপ্তাহ চার দিনের অন্তসত্তা। এখনডিএনএ পরীক্ষা করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

একই বিষয়ে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি সরকার ইফতেখার মোকাদ্দেস অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিবকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি মুঠোফোনে বলেন, আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যগাইবান্ধা আমলী আদালতে (সুন্দরগঞ্জ) পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা মিলেছে।




ফেসবুকে আমরা







x

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব গ্রেপ্তার

প্রকাশিত : ০৯:৩৬:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ অগাস্ট ২০২২
print news

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব গ্রেপ্তার

জাহাঙ্গীর আলম বাদল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক এক উপ-সচিবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বাড়ি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের পশ্চিম সোনারায়গ্রামে। তিনি ধর্ম মন্ত্রনালয়ের অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিব (৬৬)।

পুলিশ জানায়, বাক প্রতিবন্ধীর বাড়ি সংলগ্ন ওই অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিবের একটি মৎস্য খামার রয়েছে। খামারের বসবাস করার সুবাদে তিনি ওই প্রতিবন্ধীর বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন। এক পর্যায় তিনি তাকে প্রতিবন্ধীর একটি ভাতার কার্ড করে দেন। এ কারণে বাক প্রতিবন্ধী শিশুটি মৎস্য খামারে আসা যাওয়া করত। এ সুযোগে তিনি শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। এক পর্যায় শিশুটি অন্তসত্তা হয়ে পড়ে। প্রতিবন্ধী ওই শিশুর কাছ থেকে তথ্য নিয়ে তার বাবা বাদী হয়ে সোমবার

দুপুরে সুন্দরগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। বিকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।প্রতিবন্ধী শিশুর বাবা জানান, তিনি একজন দিনমজুর। বাক প্রতিবন্ধী শিশুটি ছাড়া তার কেউ নেই।

বিজ্ঞাপন

তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।এসব বিষয়ে মামলা তদন্তকারি কর্মকর্তা ও সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : যুবলীগ নেতা নোবেলের উদ্যোগে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

তিনিবলেন, শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষা করে দেখা যায়, সে ২১ সপ্তাহ চার দিনের অন্তসত্তা। এখনডিএনএ পরীক্ষা করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

একই বিষয়ে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি সরকার ইফতেখার মোকাদ্দেস অবসরপ্রাপ্ত উপ-সচিবকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি মুঠোফোনে বলেন, আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যগাইবান্ধা আমলী আদালতে (সুন্দরগঞ্জ) পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা মিলেছে।