ঢাকা ০৩:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

কালের ধারা ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : ১২:১২:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০ ৬০৪ বার পঠিত
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
print news

অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

অনিল কাপুরের বর্তমান বয়স ৬৩ বছর।এই বয়সেও তার ফিটনেস ধরে রেখেছেন।এখনো ক্যামেরার সামনে নায়ক হিসেবে বেমানান নয়।কিন্তু অনেক দিন ধরে জটিল রোগে ভুগছেন।মৃত্যুও হতে পারে তার এই রোগে।

ইনস্টাগ্রামের এক পোস্টে তিনি জানালেন, অ্যাকিলিস টেন্ডন নামের জটিল রোগ শরীরে বাসা বেঁধেছে।প্রায় বিগত ১০ বছর যাবত অ্যাকিলিস টেন্ডন নামক রোগের সাথে লড়াই করে যাচ্ছেন তিনি।এই কঠিন রোগে হাঁটুর নিচে ও গোড়ালির টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে।একটা সময় হাঁটা বন্ধ হয়ে যায়।

অ্যাকিলিস কে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য নিয়মিত যোগ করেন অনিল কাপুর।বেশির ভাগ সময় তাকে হাঁটতে হয়।আবার বেশিক্ষণ সময় বসে থাকলেই বিপদ বাড়ে তার।

বিজ্ঞাপন

অ্যাকিলিন টেন্ডনঃ সাধারণত পুরুষদের এই রোগ বেশি হয়।এত এক জাগায় বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকা যায় না।পায়ের গোড়ালির উপরের অংশের টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে।যার কারণে মানুষ হাঁটাচলার ক্ষমতা পর্যন্ত হারিয়ে ফেলতে পারেন।




ফেসবুকে আমরা







x

অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

প্রকাশিত : ১২:১২:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০
print news

অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

অনিল কাপুরের বর্তমান বয়স ৬৩ বছর।এই বয়সেও তার ফিটনেস ধরে রেখেছেন।এখনো ক্যামেরার সামনে নায়ক হিসেবে বেমানান নয়।কিন্তু অনেক দিন ধরে জটিল রোগে ভুগছেন।মৃত্যুও হতে পারে তার এই রোগে।

ইনস্টাগ্রামের এক পোস্টে তিনি জানালেন, অ্যাকিলিস টেন্ডন নামের জটিল রোগ শরীরে বাসা বেঁধেছে।প্রায় বিগত ১০ বছর যাবত অ্যাকিলিস টেন্ডন নামক রোগের সাথে লড়াই করে যাচ্ছেন তিনি।এই কঠিন রোগে হাঁটুর নিচে ও গোড়ালির টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে।একটা সময় হাঁটা বন্ধ হয়ে যায়।

অ্যাকিলিস কে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য নিয়মিত যোগ করেন অনিল কাপুর।বেশির ভাগ সময় তাকে হাঁটতে হয়।আবার বেশিক্ষণ সময় বসে থাকলেই বিপদ বাড়ে তার।

বিজ্ঞাপন

অ্যাকিলিন টেন্ডনঃ সাধারণত পুরুষদের এই রোগ বেশি হয়।এত এক জাগায় বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকা যায় না।পায়ের গোড়ালির উপরের অংশের টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে।যার কারণে মানুষ হাঁটাচলার ক্ষমতা পর্যন্ত হারিয়ে ফেলতে পারেন।